খুলনা: ঈদুল আযহা উপলক্ষে খুলনা মহানগর ও জেলায় এবার পশুর হাট বসবে ২৭টি। জেলার ৯টি উপজেলায় ২৬টি ও মহানগরে বসবে একটি কোরবানির পশুর হাট।

বিভাগের সবচেয়ে বড় হাট শহরের জোড়াগেট পশুর হাটের উদ্বোধন করা হবে আগামী ১৬ আগস্ট। এ হাট চলবে ঈদের দিন সকাল ৬টা পর্যন্ত। জেলার অধিকাংশ হাটে চলছে প্রস্ততি। নিজের খাটালে গরু আনতে শুরু করেছেন ব্যাপারীরা।

হাজার হাজার মানুষের সমাগমে কোটি কোটি টাকার লেনদেন হবে এসব হাটে। তাই সবকিছু মাথায় রেখে এবার পশুর হাটে নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তার পরিকল্পনা করছে নিরাপত্তাবাহিনী।

বুধবার (৮ আগস্ট) দুপুরে খুলনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (জেলা বিশেষ শাখা) মো. আনিচুর রহমান বাংলানিউজকে বলেন, জেলার ৯ উপজেলায় মোট ২৬টি স্থায়ী ও অস্থায়ী হাট বসবে। এরমধ্যে রূপসায় ৩টি, ফুলতলায় ১টি, পাইকগাছায় ৪টি,  ডুমুরিয়ায় ৪টি,  তেরখাদায় ১টি,  দিঘলিয়ায় ৪টি, দাকোপে ২টি, কয়রায় ৬টি ও বটিয়াঘাটায় ১টি পশুর হাট বসবে। এসব হাটের ক্রেতা ও ব্যাপারীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সব ধরনের ব্যবস্থা নেওয়া হবে। সাদা পোশাকে পুলিশের পাহাড়া থাকবে। থাকবে জাল টাকা সনাক্তকারী মেশিন। পশুবাহী ট্রাকের চাঁদাবাজি ও পশুর হাটকে কেন্দ্র করে যেকোনো ধরনের অপতৎপরতা কঠোর হাতে দমন করবে পুলিশ।

জেলার উল্লেখযোগ্য হাটগুলের মধ্যে রয়েছে, রূপসা উপজেলার তালিমপুর ও পূর্ব রূপসা বাসস্ট্যান্ড; ফুলতলা উপজেলা সদর; ডুমুরিয়া উপজেলার খর্নিয়া, শাহাপুর, আঠারো মাইল, চুকনগর; পাইকগাছা উপজেলার চাঁদখালী, গদাইপুর, কাছিকাটা, পাইকগাছা জিরোপয়েন্ট; দাকোপ উপজেলার বাজুয়া, চালনা; কয়রা উপজেলার দেউলিয়া, গোবিন্দপুর, কালনা, ঘুগরাকাঠি, মান্দারবাড়িয়া, হোগলা; দিঘলিয়া উপজেলার এম এম মজিদ কলেজ মাঠ, জালাল উদ্দিন কলেজ মাঠ, পথেরবাজার মাধ্যমিক বিদ্যালয়; তেরখাদা উপজেলার ইখড়ি কাটেঙ্গা; বটিয়াঘাটা উপজেলার বাইনতলা ।

জানা গেছে, জোড়াগেট পাইকারি কাঁচা বাজারে কুরবানির পশুর হাট শুরুর অনেক আগেভাগেই পশু বিক্রেতারা তাদের নিজ নিজ জায়গা নির্ধারণে তৎপর হয়ে উঠেছেন।

সিটি কর্পোরেশন সূত্রে জানা গেছে, মহানগরের জোড়াগেট পাইকারি কাঁচাবাজারে খুলনা সিটি করপোরেশনের (কেসিসি) নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় এবারও একমাত্র কোরবানির পশুর হাট পরিচালনার চূড়ান্ত প্রস্তুতি চলছে। আগামী ১৬ আগস্ট থেকে ঈদের দিন সকাল ৬টা পর্যন্ত জোড়াগেট কোরবানির পশুর হাট বসবে।

কেসিসির বাজার স্থায়ী কমিটির চেয়ারম্যান ১৮নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর হাফিজুর রহমান মনি বাংলানিউজকে বলেন,  প্রতি বছরের মতো এবারও খুলনার সবচেয়ে বড় পশুর হাট বসবে জোড়াগেটে। সব কাজ রুটিন অনুসারে চলছে। হাট প্রস্তুতির কাজ পুরোদমে চলছে। আগামী ১৬ আগস্ট এ পশুর হাট উদ্বোধন করার কথা রয়েছে কেসিসির নব নির্বাচিত মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেকের।

-বাংলানিউজ